1. sm.khakon@gmail.com : admin :
  2. rayhansumon2019@gmail.com : rayhan sumon : rayhan sumon
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০২৩ এনালাইসিস : ম্যাচ নং-২১ পাকিস্তান বনাম আফগানিস্তান

সৈয়দ সুহেল রানা
  • মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে

পাকিস্তানকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপ ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঘটন ঘটালো আফগানিস্তান!

সোমবার (২৩ অক্টোবর) ভারতের চেন্নাইয়ের এমএ চিদাম্বারাম স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৮ উইকেটের ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে আফগানিস্তান।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৫৬ রানের ওপেনিং জুটি পায় পাকিস্তান। দলীয় ৫৬ রানে আজমতউল্লাহ’র আলে ১৭ রান করে ফেরে ঈমাম_উল হক।এর পর ২য় উইকেটে ৫৪ রানের জুটি গড়ে শফিক ও বাবর।কিন্তু দলীয় ১১০ রানে শফিক(৫৮) নুরের বলে এলবিডব্লু হয়ে ফিরতেই পাকিস্তানের ইনিংসে হঠাৎ কিছুটা ছন্দপতন হয়।

দলীয় ১২০ রানে ইনফর্ম রিজওয়ান (৮) ফেরে নুরের দ্বিতীয় শিকার হয়ে এবং দলীয় ১৬৩ রানে নবীর বলে ২৫ রান করে ফেরে শাকিল।দলীয় ২০৬ রানে বাবর আজমের মুল্যবান উইকেটটি হারায় পাকিস্তান। অধিনায়ককে ৭৪ রানে ফেরায় নুর।

শেষদিকে এসে দারুণ জুটি গড়ে ইফতেখার ও শাদাব। ৪৫ বলে ৭৩ রানের জুটি গড়ে পাকিস্তানকে তারা ভালো সংগ্রহ এনে দেয়। ২৭ বলে ৪০ রান করে ইফতেখার। ৩৮ বলে সমান রান করে শেষ বলে উইকেট হারান শাদাব খান। এতে ২৮২ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজি পায় পাকিস্তান।

আফগানিস্তানের পক্ষে ৩ উইকেট শিকার করে নুর আহমাদ। জোড়া উইকেট পায় নাভিন উল হক। একটি করে উইকেট নেয় মোহাম্মদ নবি ও ওমরজাই।

নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে এত রানের লক্ষ্য তাড়া করে এই প্রথম জয় পেল তারা। সেই সঙ্গে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বোচ্চ রান তাড়ায় জয়ের রেকর্ডও গড়েছে আফগানিস্তান। এর আগে ২০০৩ বিশ্বকাপে ২৭৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছিল ভারত।

ওয়ানডে বিশ্বকাপে এর আগের দুই আসরে মাত্র এক ম্যাচ (২০১৫ বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে) জিতেছিল আফগানিস্তান।

অথচ এবার এক আসরেই দুই জায়ান্টকে হারিয়ে দিল তারা। কিছুদিন আগে তারা হারিয়েছে গতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে। এবার হারাল পাকিস্তানকে।

শুধু কি তাই, পাকিস্তানের বিপক্ষে ৮ বারের দেখায় এই প্রথম জয়ের মুখ দেখলো আফগানিস্তান। ফলে জয়টি তাদের জন্য ঐতিহাসিক সন্দেহ নেই। অন্যদিকে পাকিস্তান টানা ৩ ম্যাচ হেরে সেমিফাইনালে উঠার লড়াই থেকে প্রায় ছিটকেই পড়লো।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে দুই ওপেনারের ব্যাটেই অনেকটা পথ এগিয়ে যায় আফগানিস্তান। দুজনেই পায় ফিফটির দেখা। তাদের জুটিতে আসে ১৩০ রান।

এর মধ্যে রহমানুল্লাহ গুরবাজ ৫৩ বলে ৬৫ রান করে শাহিনের বলে আউট হলেও ইব্রাহীম জাদরান ছুটছিলেন সেঞ্চুরির পথে। তবে তার সেই লক্ষ্য পূরণ হয়নি। ১১৩ বলের মোকাবিলায় ৮৭ রান করে হাসান আলির শিকারে পরিণত হন তিনি।

দুই ওপেনার বিদায় নিলেও ম্যাচ থেকে ছিটকে যায়নি আফগানরা। বরং পরের দুইজন বাকি পথ অনায়াসেই পাড়ি দিয়েছেন। তিনে নামা রহমত শাহ ৮৪ বলে ৭৭ রান নিয়ে অপরাজিত থাকে।

বিশ্বকাপে এই প্রথম আফগানিস্তানের প্রথম তিন ব্যাটার ফিফটির দেখা পেলো। আর অধিনায়ক হাশমতুল্লাহ শহীদি অপরাজিত থাকে ৪৮ রানে।

৮৭ রানের অসাধারণ ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয় ইব্রাহিম জাদরান।

সামাজিক মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
বানিয়াচং মিরর  © ২০২৩, সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।
Developer By Zorex Zira

Designed by: Sylhet Host BD